Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২১ মে, ২০২২ , ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

গড় রেটিং: 3.0/5 (20 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৩-২০২০

‘শ্লীলতাহানির পর’ ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ: গ্রেপ্তার ৪

এম রবিউল ইসলাম রবি


‘শ্লীলতাহানির পর’ ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ: গ্রেপ্তার ৪

ঝিনাইদহ, ০৩ অক্টোবর- ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী উলফাত আরা তিন্নীর (২৫) মৃত্যুর ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

তারা হলেন ওই উপজেলার শেখপাড়া এলাকার আমিরুল ইসলাম (২৬), নজরুল ইসলাম (২৭), লাবিব হোসেন (২৫) ও তন্ময় আহমেদ (২৬)।

শৈলকুপা থানার ওসি (তদন্ত) মহসিন হোসেন জানান, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পড়ালেখা শেষ করা মেধাবী ছাত্রী তিন্নীর মৃত্যুতে শুক্রবার রাতে আটজনের নাম উল্লেখসহ আরো অজ্ঞাত পাঁচ-ছয়জনের নামে শৈলকুপা থানায় ধর্ষণ ও আত্মহত্যা প্ররোচণার মামলা দায়ের হয়েছে। আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, নিহত তিন্নীর মা হালিমা বেগম বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। পরে তারা অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করেন। এ ঘটনায় এখনো পলাতক রয়েছে মুল অভিযুক্ত জামিরুল ইসলাম।

তিন্নীর পরিবার জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে বড় বোন মুন্নীর প্রাক্তন স্বামী জামিরুল লোকজন নিয়ে তাদের বাড়িতে আসে। তারা ঘরে ভাংচুর চালায়। এ  সময় তিন্নী বাড়ির দ্বিতীয় তলায় ছিলেন। ভাঙচুরের সময় বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে চেঁচামেচি শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে জামিরুল ও তার লোকজন পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন: কন্যা সন্তানের জন্ম দিলো পাগলি, কোলে তুলে নিলেন ডিসি

ঘটনার কিছুক্ষণ পর তিন্নীর কোনো সাড়া না পেয়ে দ্বিতীয় তলায় গিয়ে তার রুম ভেতর থেকে লাগানো দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা। দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তিন্নীকে ফ্যানে সঙ্গে ঝুলতে দেখেন তারা। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।

মিন্নীর সাবেক স্বামী তিন্নীর শ্লীলতাহানি করেছে বলেও অভিযোগ তার পরিবারের।

অপর দিকে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রি নিয়ে সদ্য বের হওয়া উলফাত আরা তিন্নীর ওপর নির্যাতন ও নিহতের ঘটনার বিচারের দাবিতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে ইবি ক্যাম্পাস।

শনিবার সকাল ১১টার দিকে ইবি ক্যাম্পাসের সামনে সাধারণ শিক্ষার্থী-কর্মচারীর ব্যানারে মানববন্ধন হয়েছে। এ ঘটনার বিচার না হলে আরো কঠোর কর্মসূচীর হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় মানববন্ধন থেকে।

কথা বলে জানা গেছে, তিন্নী নিহতের ঘটনা কোনোভাবে মেনে নিতে পারছেন না তার সহপাঠীসহ ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরা। এদিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সদস্যের উপস্থিতি চোখে পড়েছে শেখপাড়া ও ইবি এলাকায়।

সূত্র : দেশ রূপান্তর
এম এন  / ০৩ অক্টোবর

ঝিনাইদহ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে